Author Topic: ৫ টি নৈতিক মূল্যবোধ যা শিশুদের অবশ্যই শেখা  (Read 5589 times)

0 Members and 1 Guest are viewing this topic.

ashraful.diss

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 366
  • জ্ঞানী হও তবে অহংকারী হইও না
    • View Profile
    • Email

৫ টি নৈতিক মূল্যবোধ যা শিশুদের অবশ্যই শেখানো উচিত

শিশুদের মধ্যে নৈতিক মূল্যবোধ গেঁথে দেওয়ার উপায়

আমাদের দায়িত্ব কেবলমাত্র একটি শিশুর শারীরিক বিকাশের যত্ন নেওয়া নয় শিশুর মানসিক বৃদ্ধি উন্নত করার ক্ষেত্রে সুষ্ঠ ভাবে সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়া। যা শিশুদের চরিত্র গঠনে সবচেয়ে বড় ভূমিকা পালন করে এবং শিশু বড় হওয়ার সাথে সাথে, জীবনে সে কি রকম মানুষ হয়ে উঠবে তার উপর সর্বাধিক প্রভাব ফেলে।

কিছু লোক যুক্তি দেয় যে শিশুরা নিজেরাই নৈতিকতা শেখে, বা প্রি-স্কুলার শিশুদের নৈতিক মূল্যবোধ এবং ধারণা শেখার পক্ষে বেশিই তাড়াতাড়ি হয়ে যাবে। কিন্তু এটি ভুল; অল্প বয়সেই শিশুদের মূল্যবোধ শেখানো ভাল, যাতে তারা বড় হওয়ার সাথে সাথে সেগুলি তাদের ব্যক্তিত্বের অংশ হয়ে যায়।

আসুন এমন পাঁচটি নৈতিক মূল্যবোধ দেখে নেওয়া যাক যা প্রত্যেক দায়িত্বশীল তাদের শিশুদেরকে শেখাতে হবে।

১. আপনি যা উপদেশ দেন তা অনুশীলন করুন

শিশুরা আশেপাশের লোকদের কাছ থেকে শেখে, তাই শিশুদের ভালো মূল্যবোধ শেখানোর জন্য আপনাকে প্রথমে সেগুলিকে আপনার নিজের জীবনে মডেল করতে হবে। আপনি মৌখিকভাবে অসংখ্য মূল্যবোধ ব্যাখ্যা করতে পারেন, তবে শিশুরা কেবলমাত্র সেগুলিই বেছে নেবে যেগুলি আপনি আপনার নিজের আচরণের মাধ্যমে দেখাবেন।


২. ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা বর্ণনা করুন

ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা গল্পের মতো হয় এবং সমস্ত শিশুরা গল্প শুনতে পছন্দ করে। আপনার নিজের জীবন থেকে গল্প শিশুদের সাথে শেয়ার করুন, যেখানে নৈতিক মূল্যবোধ মেনে চলার ফলে আপনার জীবনে ইতিবাচক অভিজ্ঞতা হয়েছিল এবং এইভাবে শিশু আরও ভালভাবে বুঝতে বাধ্য।

৩. ভাল আচরণের পুরস্কার দিন

এমন একটি সিস্টেম নিয়ে আসুন, যেখানে আপনি শিশুকে তার জীবনে এই মূল্যবোধগুলি ব্যবহার করার জন্য পুরস্কৃত করবেন। প্রশংসা এবং পুরস্কার হল ইতিবাচক শক্তিবৃদ্ধি যা শিশুদের গঠনে অবিশ্বাস্য ভাবে ভাল কাজ করে।

৪. কার্যকরভাবে কথাবার্তা বলুন

এই নৈতিক মূল্যবোধগুলি কীভাবে প্রতিদিনের জীবনে কাজ করে তা সম্পর্কে আপনি শিশুর সাথে প্রতি দিনই কথোপকথন করুন। উদাহরণস্বরূপ, আপনি খবরের কাগজের একটি নিবন্ধ নিয়ে আলোচনা করতে পারেন এবং আপনি শিশুদেরকে জিজ্ঞাসা করতে পারেন যে সে এই একই পরিস্থিতিতে কী করত।

৫. টেলিভিশন এবং ইন্টারনেটের ব্যবহার নিরীক্ষণ করুন

টেলিভিশন এবং ইন্টারনেট থেকে কোনভাবেই রেহাই পাওয়া যায় না, তবে শিশু যা দেখছে তা আপনি অবশ্যই পর্যবেক্ষণ করতে পারেন। নিশ্চিত হয়ে নিন যে শো-টি ভাল মূল্যবোধ ও নৈতিকতার প্রচার করে এবং তার বয়সের জন্য উপযুক্ত হয়।

হে আল্লাহ! আপনি আমাদের কবুল করে নিন আমরা যেন আমাদের শিশুদের মধ্যে নৈতিক মূল্যবোধ গেঁথে দিতে পারি। আমীন!



জ্ঞান অন্বেষণ করা প্রত্যেক মুসলমানের (নারী ও পুরুষ) উপর ফরজ । জ্ঞানের শহর হলেন হযরত মোহাম্মাদ (সাঃ) আর সেই শহরের দরজা হলেন হজরত আলী (রাঃ) । জ্ঞান ব্যতীত কর্ম অর্থহীন আবার কর্ম ব্যতীত জ্ঞান অর্থহীন। জ্ঞানী হও তবে অহংকারী হইও না, ইবাদত কর তবে লোক দেখানোর উদ্দেশ্যে করোনা ।